1. shahalom.socio@gmail.com : admin :
  2. ahmedjuees@gmail.com : Jeshore Protidin :
শুক্রবার, ০৩ এপ্রিল ২০২০, ১০:৩২ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
যশোর কান্টনমেন্ট কলেজে করোনা ইউনিট জাতির উদ্দেশ্যে যা বললেন প্রধানমন্ত্রী চুয়াডাঙ্গায় করোনা সন্দেহে ৪৮ জনকে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। দামুড়হুদায় পানির আর্সেনিক ও আয়রণ মুক্তকরণ স্থাপনার উদ্বোধন করলেন এমপি টগর। শার্শায় বিভিন্ন আয়োজনে বঙ্গবন্ধুর জন্ম শতবার্ষিকী পালিত দর্শনায় শ্রদ্ধার সাথে জাতির জনকের জন্ম শতবার্ষিকী পালন। পাটকেলঘাটয় মাসে প্রায় ৪ লক্ষ টাকা চাঁদা দিতে হয় ইউনিয়ন শ্রমিকদের। করোনাভাইরাসের কারণে দেশের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করছে সরকার। যশোর শামস্ উল হুদা স্টেডিয়ামে বঙ্গবন্ধু আন্তঃ উপজেলা ফুটবল টুর্ণামেন্ট ২০২০ এর শুভ উদ্বোধন। দর্শনা থানায় প্রইভেটকার সহ ৫৬৪ বোতল ফেন্সিডিল জব্দ, আটক ১।
শিরোনাম
যশোরের কর্মহীনদের মাঝে প্রত্যয় সমাজকল্যাণ সংঘ পক্ষ থেকে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ। স্পেনে করোনাভাইরাসে মৃতের সংখ্যা ১০ হাজার ছাড়ালো দেশে করোনার উপসর্গ নিয়ে একদিনে ১৯ জনের মৃত্যু আমেরিকায় একদিনে রেকর্ড ১০৪১ জনের মৃত্যু চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের এমপি টগরের উদ্দোগে ৪ হাজার পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ। ফুলতলা দামোদর ইউপি তে অ্যাড.সুজিত অধিকারী দুস্থদের মাঝে ত্রাণ বিতারণ কেশবপুরের করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় জন্য উপজেলা পরিষদের পক্ষ থেকে হাসপাতালে অক্সিজেন সিলিন্ডার ০৬টি, নেবুলাইজার ০৬টি , মাস্ক ০৬ টি প্রদান। করোনায় দেশে মৃত্যু বেড়ে ৬, আক্রান্ত ৫৪ যশোর কান্টনমেন্ট কলেজে করোনা ইউনিট বেনাপোল সীমান্তে বিজিবির টহল জোরদার

নাভারন ইউনিয়ন কৃষকদের মাথায় হাত।

  • আপডেট করা হয়েছে বুধবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০১৯
  • ১ বার পড়া হয়েছে
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

প্রসেনজিৎঃশার্শা উপজেলার নাভারন ইউনিয়ন কৃষকদের মাথায় হাত।এতো সুন্দর ধান চাষ করে তারা তাদের চাহিদা মতো দাম পাচ্ছেননা কৃষকরা।

ধানের দাম নেই বলে কৃষকরা কি করবে ভাবতে পারছে না।ধানের দাম মাএ ৬০০থেকে ৭০০টাকা প্রতি মন।কিন্তু মাঠে ধান কাটা বাধা চলেছে ৪০০০ টাকা বিঘা।আবার মাঠ থেকে বাড়িতে আনতে আবার গাড়ি ভাড়া নিচ্ছে ৭০০থেকে ৮০০ টাকা বিঘা। কিন্তু কৃষকরা এতো টাকা খরচ করে দাম পাচ্ছে মাএ ৬০০থেকে ৭০০ টাকা মন।কৃষকরা বলছেম ধান করতে তাদের অনেক খরচ হয়েছে তাদের সব লস হয়ে যাবে। তারা তাদের চাহিদা মতো দাম পাচ্ছে না।এতো সুন্দর করে কৃষকরা চাষ করে পাচ্ছেননা চাহিদা মতো দাম।তারা কি করে বাচবে, তারা বলেন এভাবে চললে চাষ কাজ করার জন্য মাঠে কৃষক থাকবে না।আবার মাইকিং করে লটারির মাধ্যমে ধান কেনার জন্য বলা হয়েছে প্রতিটা ইউনিয়নে এখন কৃষকরা বলেন লটারি করে ধান সবাই তো বেচতে পারবে না।  কারন লটারিতে তো শুধু কয়জনের জন্য। সবার ভাগ্য তো এক না, এতো কষ্ট ও খরচ চাষ করে তাদের খরচের টাকা উঠবে না বলে মনে করেন কৃষকে।    এমন হলে কৃষকরা তো মাঠে মারা য়াবে।

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
আরো সংবাদ পড়ুন

Designed by: Nagorik It.Com