» কলারোয়ায় অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী ধর্ষণ, আটক দুই যুবক

প্রকাশিত: ২৪. ডিসেম্বর. ২০১৯ | মঙ্গলবার

কলারোয়া প্রতিনিধি : কলারোয়ায় অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে প্রিমিয়ার ছাত্রসংঘের সভাপতি অভিসহ দুই যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। রোববার (২২ ডিসেম্বর) রাতে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃত যুবকরা হলো, কলারোয়া পৌর সদরের যুগিবাড়ি গ্রামের ফারুক হোসেনের ছেলে শুভ হোসেন (২২) ও ঝিকরা গ্রামের ডাক্তার আমানুল্লাহ আমানের ছেলে প্রিমিয়ার ছাত্রসংঘের সভাপতি অভি (২৪)।
ধর্ষণের শিকার ওই কিশোরী কলারোয়া শহরের বাসিন্দা ও স্থানীয় একটি স্কুলের অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী।
এর আগে রোববার সন্ধ্যায় ওই স্কুলছাত্রীর বাবা কলারোয়া থানায় চারজনের নাম উল্লেখ করে মামলা দায়ের করেন।
মামলার অন্য আসামিরা হলো কলারোয়া শহরের গদখালি এলাকার মুনছুর আলীর ছেলে মো. গালিব (৩৫) ও আলতাফ হোসেনের ছেলে আল আমিন (১৯)।
এজাহারে বলা হয়েছে, গত ২০ ডিসেম্বর তার মেয়ে কেনাকাটার জন্য কলারোয়া বাজারে আসে। কলারোয়া সরকারি কলেজের সামনে মো. গালিব ও আল আমিন তার মেয়েকে জোর করে এক ধরনের তরল জাতীয় পানি পান করায়। এরপর থেকে তার শরীর ঝিমঝিম করতে থাকে। বাজার থেকে বাড়ি ফেরার পর তার বমি-বমি ভাব হলে সে পান খাওয়ার জন্য একটি দোকানে যায়। দোকান থেকে ফেরার পথে শুভ এবং অভি মোটরসাইকেলে করে তাকে জোরপূর্বক উঠিয়ে উপজেলার তেলকাড়া এলাকার একটি বিলের মধ্যে নিয়ে যায়। সেখানে শুভ তাকে ধর্ষণ করে খুন করতে উদ্যত হয়। কিন্তু অভি তাতে বাধা দেয়। পরে তাকে মাহমুদপুর মান্দারতলা ব্রিজের সামনে একটি বাগানে ফেলে যায়।  খবর পেয়ে মেয়েটির মা ও আকাশ নামে এক যুবক তাকে উদ্ধার করেন।
কলারোয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শেখ মুনীর-উল-গীয়াস এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ৪৭ বার

Share Button